ঢাকা, সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮, ১০ বৈশাখ ১৪২৫

ডিভোর্স এড়াতে গ্রামের খোলা ময়দানে গণচুম্বন প্রতিযোগিতা!

২০১৭ ডিসেম্বর ১১ ২২:৪৩:৩১
ডিভোর্স এড়াতে গ্রামের খোলা ময়দানে গণচুম্বন প্রতিযোগিতা!

১৮ জোড়া আদিবাসী পুরুষ ও মহিলা ঠোঁট ঠোঁট রেখে মগ্ন চুম্বনে৷ নিশ্বাস নেওয়ারও ফুরসত নেই৷ ঠোঁট সরালেই হার৷ প্রকাশ্যে চুম্বনে এখনও যে দেশে আপত্তি, সেই দেশেই গণচুম্বন প্রতিযোগিতায় মাতল ঝাড়খণ্ডের পাকুর জেলার এক ছোট্ট আদিবাসী গ্রাম৷

প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন ১৮ জোড়া বিবাহিত দম্পতি৷ গ্রামের নাম ধামুড়িয়া৷ ভারতের ঝাড়খন্ড রাজ্যের রাঁচি থেকে ৩২১ কিমি দূরে অবস্থিত এই গ্রামের পরিবেশ একবিংশ শতাব্দীর বড় বড় মেট্রো শহরের চেয়েও আধুনিক৷ খোলা ময়দানে বাঁশের ঘেরাটোপে চুমু খেতে মত্ত কয়েক জোড়া কপোত-কপোতী৷

ব্যারিকেডের এপারে তাদের ঘিরে দাঁড়িয়ে প্রায় হাজার খানেক মানুষ৷ তালিতে স্লোগানে তাদের উৎসাহ দিয়ে চলেছেন দর্শকেরা৷ এমন দৃশ্যেরই দেখা মিলল ভারতেরই এক গ্রামে৷ যে দেশে পদ্মাবতী সিনেমা বানানো নিয়ে তুঙ্গে ওঠে বিতর্ক, সে দেশেই খোলা ময়দানে আয়োজন করা হয়েছিল চুম্বন প্রতিযোগিতার আর অংশ নিলেন রক্ষণশীল আদিবাসী সমাজের ১৮ জোড়া স্বামী-স্ত্রী৷

কিন্তু হঠাৎ এমন চুমু প্রতিযোগিতার কি দরকার পড়ল? এই প্রশ্নের উত্তর দিলেন ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতা ও স্থানীয় বিধায়ক সিমন মারাণ্ডি৷ তার উদ্যোগেই এমন প্রতিযোগিতার আহবান৷ সিমন বলেন, বর্তমানে তথাকথিত আধুনিক নয় এমন সমাজেও বেড়ে গিয়েছে বিবাহ-বিচ্ছেদের হার৷ ছোট ছোট ঘটনাকে কেন্দ্র করে আদিবাসী পরিবারেও ঘটছে ডিভোর্স৷

স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে প্রেমের ছোঁওয়া ফিরিয়ে আনতে ও সাত পাকের বন্ধন আরও দৃঢ় করতেই এই অভিনব চুমু প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে বলে জানান বিধায়ক৷ এই অভিনব চুমু প্রতিযোগিতা নিয়ে অভিভূত স্থানীয় বাসিন্দারাও৷ এই কাণ্ড চাক্ষুষ দেখতে দুরদুরান্ত থেকে হাজির হয়েছিলেন বহু মানুষ৷ সদর্থক সমর্থন পেয়ে আবারও এমন প্রতিযোগিতার আয়োজনের কথা ভাবতেই পারেন সিমন ৷


সমকালীন এর সর্বশেষ খবর

সমকালীন - এর সব খবর