ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

জানেন এইডসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছিলেন এই তারকারা

২০১৭ ডিসেম্বর ০১ ১১:১৭:৪৮
জানেন এইডসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছিলেন এই তারকারা

অন্যান্য সব রোগের মতো এইডসও একটি রোগ। তবে এই রোগের সম্পূর্ণ চিকিৎসা আজ অবধি আবিষ্কার হয়নি বলে মৃত্যু অবধারিত। তাই এইডস থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় হচ্ছে প্রতিরোধ। জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে প্রতি বছর বিশ্ব এইডস দিবস হিসেবে পালন করা হয় পহেলা ডিসেম্বরকে। ১৯৮১ সালে প্রথম এইচআইভি নামক ভাইরাসটি আবিষ্কার হয়। এরপর এইচআইভি’তে আক্রান্ত হয়ে প্রায় আড়াই কোটিরও বেশি মানুষ মৃত্যুবরণ করেন। বাদ যায়নি বিশ্বজোড়া

খ্যাতি মান তারকারাও। চলুন জেনে নেওয়া যাক এইডসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা কয়েকজন তারকা সম্পর্কে।

ফ্রেডি মার্কারি

৭০ দশকের ইংল্যান্ডের এক কালজয়ী রক ব্যান্ডের নাম ‘কুইন’। আজ অবধি ঐ সাড়াজাগানো কুইন ব্যান্ডের কতো যে অগণিত ভক্ত রয়েছে তার কোনো হদিস নেই। সেই কুইন ব্যান্ডের জনপ্রিয় ভোকাল ফ্রেডি মার্কারি এইডসে আক্রান্ত হয়ে ১৯৯১ সালের ২৪ নভেম্বর না ফেরার দেশে চলে যান। তখন তাঁর বয়স ছিল মাত্র পঁয়তাল্লিশ বছর।
জিয়া কারাঞ্জি

জিয়া কারাঞ্জি ছিলেন ৭০ দশকের এক আলোড়নকারী নারী মডেল। এই আবেদনময়ী মডেল খুব অল্প বয়সেই আসক্ত হয়ে পড়েছিলেন নানা রকম নেশায়জাতীয় দ্রব্যে। অতঃপর ১৯৬০ সালে জন্ম নেওয়া এই প্রতিভাবান মডেল এইচআইভিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন ১৯৮৬ সালে।
আইজাক আসিমভ
বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর আইজাক আসিমভ ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের জনপ্রিয় লেখক। তিনি সাইন্স ফিকশন বই লিখে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তার লেখা এ পর্জন্ত ৫০০ এর বেশি বই রয়েছে। মরণ ব্যাধি এইডসে আক্রান্ত হয়ে ১৯৯২ সালে তাকেও চিরতরে ওপারে চলে যেতে হয়।
আর্থার অ্যাশ

তিনি ছিলেন বিশ্বের এক নম্বর ঐতিহাসিক টেনিস তারকা। কৃষ্ণাঙ্গ হওয়ার করণে ক্যারিয়ারে অজস্র প্রতিকূলতা অতিক্রম করতে হয়েছিলো তাঁকে। মাত্র ৪৯ বছর বয়সে এই প্রতিবাদী টেনিস তারকা ১৯৯৩ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি নিউ ইয়র্কের একটি হাসপাতালে এইচআইভি ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিরনিদ্রায় শায়িত হন।
অ্যান্থনি পারকিনস


তিনি ছিলেন একাধারে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ও অভিনেতা। তাকেও ১৯৯২ সালে হার মানতে হয়েছিলো এই মরণ ঘাতক এইডসের কাছে।

হলিউড এর সর্বশেষ খবর

হলিউড - এর সব খবর

উপরে