ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

ডিপজলের চার নম্বর অধ্যায়

২০১৭ নভেম্বর ১৪ ২২:৩৪:৪৩
ডিপজলের চার নম্বর অধ্যায়

‘সবাইকে জানিয়ে দিন আমার জীবনের চতুর্থ অধ্যায়ের শুরুর কথা। ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে চলচ্চিত্রে আমার ফোর্থ টার্ম।’ বললেন চলচ্চিত্রের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজল। সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ৫১ দিন চিকিৎসার পর ৯ নভেম্বর দেশে ফিরেছেন তিনি। সেখানে গত ৩০ অক্টোবর তাঁর হার্টে বাইপাস অস্ত্রোপচার করা হয়। তিনি এখন সুস্থ আছেন।

ডিপজল জানান, তিনি নতুন চলচ্চিত্র প্রযোজনা করবেন। ছবির নাম ‘পাথরের মন’। এখানে তাঁর সঙ্গে অভিনয় করবেন সায়মন। আর এই ছবিতে তিনি চমক নিয়ে দর্শকদের সামনে আসছেন। ছবির বাজেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১ কোটি ২০ লাখ টাকা।

‘পাথরের মন’ পরিচালনা করবেন ছটকু আহমেদ। তিনি জানান, নতুন ছবির জন্য ডিপজল নিজেই গল্প তৈরি করেছেন। সিঙ্গাপুরে চিকিৎসার ফাঁকে মেয়ে অলিজার সঙ্গে বসে গল্পটি ভেবেছেন তিনি। গতকাল সোমবার ডিপজলকে দেখতে গিয়েছিলেন ছটকু আহমেদ। এই পরিচালকের ভাষায়, ‘গল্প শুনে আমি মুগ্ধ হয়ে গেলাম। ডিপজল আমাকে গান নিয়ে বসতে বললেন। আজ মঙ্গলবার আলী আকরাম শুভর সঙ্গে গান নিয়ে বসছি।’

খলনায়ক হিসেবে চলচ্চিত্রে ক্যারিয়ার শুরু করেন ডিপজল। তাঁর মতে, সেটা ছিল চলচ্চিত্রে তাঁর প্রথম অধ্যায়। এরপর দ্বিতীয় অধ্যায় শুরু হয় ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবি দিয়ে। এই ছবিতে তিনি নায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। ব্যবসার পাশাপাশি তিনি রাজনীতির সঙ্গেও জড়িত। মিরপুরে কমিশনার পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর অবৈধ অস্ত্র রাখার দায়ে তাঁকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। সেখান থেকে ফিরে তিনি আবার চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। এটা ছিল তাঁর তৃতীয় অধ্যায়। আর এবার সিঙ্গাপুর থেকে চিকিৎসার পর দেশে ফিরে চতুর্থ অধ্যায় শুরু করছেন নতুন চমক দিয়ে। জানা গেছে, ‘পাথরের মন’ ছবিতে অদ্ভুত এক চরিত্রে অভিনয় করবেন তিনি।

ছটকু আহমেদ আরও জানান, ডিপজল অভিনীত আরেকটি ছবি ‘এক কোটি টাকা’র কিছু কাজ এখনো বাকি আছে। ছবির অন্যতম অভিনয়শিল্পী মিজু আহমেদ মারা যান, ডিপজল অসুস্থ হলেন—সব মিলিয়ে ছবির শুটিং আটকে যায়। আগামী ডিসেম্বর মাসে এই ছবির সব কাজ শেষ করা হবে। ছবিতে অভিনয় করছেন ডিপজল, বাপ্পি চৌধুরী, আঁচল, শিরিন শীলা, বড়দা মিঠু প্রমুখ। এরপর আগামী ১ জানুয়ারি শুরু হবে ‘পাথরের মন’।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর বিকেলে বাসায় হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন ডিপজল। তাঁকে দ্রুত রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসকেরা তাঁকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি করেন। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য পরদিন বিকেলে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ডিপজলকে সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়।

উপরে