ঢাকা, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

নাচলেন শাহরুখ, সমালোচনায় মমতা

২০১৪ আগস্ট ১১ ২৩:৪৪:২৩
নাচলেন শাহরুখ, সমালোচনায় মমতা

কলকাতা পুলিশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে শাহরুখ খানের সঙ্গে নাচার সুযোগ পান এক নারী পুলিশ। দায়িত্বরত অবস্থায় পুলিশের উর্দি পরে নাচার কারণে তাকে নিয়ে রাজ্যজুড়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছে।কলকাতা পুলিশ বাহিনীর বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ৯ অগাস্ট কলকাতার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়।

মমতার সঙ্গে সেদিন অনুষ্ঠানে অংশ নেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের মালিক ও পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যদূত শাহরুখ খান।অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে শাহরুখকে তার সিনেমা ‘যাব তাক হ্যায় জান’-এর একটি জনপ্রিয় গানের তালে নাচতে দেখা যায়। তার নাচের সঙ্গী হিসেবে দেখা যায় সাব-ইন্সপেক্টর শম্পা হালদারকে।এতেই ক্ষেপেছে কলকাতার রাজনীতিক মহল। ঘটনার সমালোচনা করছেন সাবেক পুলিশ কর্মকর্তাদের অনেকেই।আঙুল তোলা হচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে, কারণ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে তিনি সেদিনের অনুষ্ঠানে সামনের সারিতে বসেছিলেন।কংগ্রেস নেতা অধির রঞ্জন চৌধুরী বলেন, “একজন সরকারি কর্মচারীর ইউনিফর্ম পরা অবস্থায় নাচা সংবিধান কখনো সমর্থন করে না। এ ধরনের কাজকে বাধা না দিয়ে মমতা সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন।”বিজেপি নেতা রাহুল সিনহার মতে, মমতার রাজনীতিতে আসাই ভুল হয়েছে।
“তার এলাকার যে কোনো অনুষ্ঠানে যে হারে সিনেমার নায়ক নায়িকাদের অংশগ্রহণ দেখা যায়, মনে হচ্ছে তিনি ভুল করে রাজনীতিতে এসেছেন। যতো দ্রুত তিনি নিজের ভুল বুঝতে পেরে রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়াবেন, তত দ্রুত দেশের মানুষের মঙ্গল হবে।”পশ্চিমবঙ্গের দৈনিক আনন্দবাজারকে সিপিএম সাংসদ মহম্মদ সেলিম বলেন, “যে কোনও দেশেই উর্দির কিছু ‘কোড’ থাকে। কিন্তু তৃণমূলের জমানায় বিনোদন এত বড় একটা শিল্প যে, নিয়ম-নীতি-আদর্শ কোনও কিছুর পরোয়া নেই!”কলকাতার সাবেক পুলিশ কমিশনার নিরুপম সোমের মতে, পুলিশের উর্দির অবমাননা করেছেন শম্পা।
তিনি বলেন, “আমি দায়িত্বে থাকলে এমন কোনো ঘটনা কখনোই ঘটতে দিতাম না। যদি তিনি সাদা পোশাকে নাচতেন, তাহলে কোন সমস্যা ছিল না। কিন্তু ইউনিফর্ম পরে এ ধরণের কাজ করা নিজের পেশাকে তুচ্ছ করার সামিল।”সাবেক আইপিএস অফিসার সমির গঙ্গোপাধ্যায় জানান, পুলিশের নিয়ম অনুযায়ী ইউনিফর্ম পরে নাচার অধিকার কোন ব্যক্তিকে দেয়া হয়নি।
‘দাবাং’ সিনেমায় সালমান খান অভিনীত পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রটির উদাহরণ টেনে তিনি আরও বলেন, “হয়তো কোন একদিন দেখা যাবে চুলবুল পান্ডের মত করে আমাদের অফিসাররা পুলিশের পোশাকে নাচা শুরু করে দিয়েছেন!”
রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী মদন মিত্র অবশ্য এ ঘটনায় কোনও অসামঞ্জস্য দেখতে পাননি। তিনি আনন্দবাজারকে বলেন, “এর মধ্যে আমি খারাপ কিছু দেখি না। ওই পুলিশকর্মী কোনও আইনভঙ্গ করেছেন বলে আমার জানা নেই।”
বছর দুয়েক আগে জলপাইগুড়ির টাউন হলে উর্দি পরে নেচে শো-কজের মুখে পড়তে হয়েছিল এক নারী পুলিশকর্মীকে। ২০০৩ সালে মুর্শিদাবাদে টালিগঞ্জের এক নায়িকার সঙ্গে উর্দি পরে নাচায় সাসপেন্ড হতে হয়েছিল এক সাব-ইনস্পেক্টরকে।
কিন্তু শম্পা হালদারের ক্ষেত্রে কোনো শৃঙ্খলাভঙ্গ হয়েছে বলে মনে করছে না কলকাতা পুলিশ।
কলকাতা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবাশিস রায় বলেন, “এই ঘটনায় শৃঙ্খলাভঙ্গ হয়েছে, সেটা কে বলল!”
অনুষ্ঠানে উপস্থিতে ছিলেন পুলিশ কমিশনার সুরজিৎ কর পুরকায়স্থ। তিনি এ বিষয়ে এখনও কোনো বক্তব্য দেননি।
শাহরুখ খান বরাবরই মমতার কাছ থেকে বিশেষ কদর পান। এই অনুষ্ঠানটিতেও শাহরুখের হাতে রাঁখি বাঁধেন মমতা।

উপরে