ঢাকা, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

ইন্টারনেটে নিরাপদ থাকতে বিশেষজ্ঞের পাঁচ পরামর্শ

২০১৪ আগস্ট ১০ ১৩:৩৫:৪০
ইন্টারনেটে নিরাপদ থাকতে বিশেষজ্ঞের পাঁচ পরামর্শ

এবার বোধ হয় ইন্টারনেটে আপনার যাবতীয় অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড বদলে ফেলার সময় হয়েছে। সেই সঙ্গে বাড়তি নিরাপত্তাব্যবস্থাও জোরদার করতে হবে।

কারণ ইন্টারনেট ডাটা সিকিউরিটির ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক ছোবলটি হেনেছে রাশিয়ার সাইবার অপরাধী গ্যাং। আমেরিকার হোল্ড সিকিউরিটি কিছুদিন আগে তথ্য প্রকাশ করে জানায়, ওই সাইবার ক্রাইম গ্যাং প্রায় ১.২ বিলিয়ন ওয়েবসাইট ব্যবহারকারীর আইডি ও পাসওয়ার্ড হস্তগত করেছে।
এই হুমকি শুধু আমেরিকার জন্যই আতঙ্ক নয় বরং তা গোটা বিশ্বের যেকোনো ব্যবহারকারীর জন্য মহা অশনিসংকেত। চুরির প্রক্রিয়া চলছে এবং যেখান থেকে যার আইডি-পাসওয়ার্ডই পাওয়া যাক, তাই হাতিয়ে নেওয়া হবে।
অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়াসহ ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বা অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ অ্যাকাউন্টকে নিরাপত্তা দিতে তোড়জোড় শুরু করুন এখনই। ওই ভয়ংকর অপরাধীদের আগ্রাসন থেকে বাঁচতে তাই থাকা চাই নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা থাকা চাই। এখানে জেনে নিন হ্যাকারদের কবল থেকে বাঁচতে পাঁচটি কার্যকর উপায়।
১. পাসওয়ার্ড বদলে ফেলুন : অ্যাকাউন্টকে নিরাপত্তা দিতে এটা প্রাথমিক ও মৌলিক পদ্ধতি। তাই প্রথমেই আপনার পাসওয়ার্ড বদলে ফেলুন। এতে ক্ষতির মাত্রা কমে যাবে। অনলাইনে যতগুলো অ্যাকাউন্ট রয়েছে সবগুলোতে নতুন পাসওয়ার্ড দিন। এমনিতেও স্পর্শকাতর ও গুরুত্বপূর্ণ অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড তিন বা ছয় মাস পর পর পরিবর্তন করা উচিত।
যাদের কাছে এখনো এ কাজটি কঠিন ও ঝামেলার মনে হয় তাদের জন্য রয়েছে 'লাস্টপাস' এবং 'ড্যাশলেন' অ্যাপস। এসব অ্যাপস দিয়ে যাবতীয় পাসওয়ার্ড ব্যবস্থাপনা করা যায়। এ ছাড়া আপনার লগইন নিরাপদে সংরক্ষিত থাকে।
২. শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরি করুন : এ দফায় নিরাপত্তার কোডটিকে আরো জটিল ও কুটিল করে তৈরি করুন। কমপক্ষে ১২ থেকে ১৫ ডিজিটের পাসওয়ার্ড বানিয়ে নিন যেখানে ছোট ও বড় হাতের অক্ষরের ব্যবহার, সংখ্যা এবং প্রতীকের মিশেল থাকবে। অভিধানে রয়েছে এমন শব্দ ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। তবে শব্দ ব্যবহার করলে তা উল্টে-পাল্টে ফেলুন। যেমন- 'RussiaNHacker!23' পাসওয়ার্ডটির চেয়ে 'Russianhacker123' অনেক সহজ। আরো কারিগরি ফলিয়ে এটাকে অনেক কঠিন করতে পারবেন।
৩. সব অ্যাকাউন্টে এক পাসওয়ার্ড নয় : পাসওয়ার্ড মনে রাখার ঝামেলার কারণে সব অ্যাকাউন্টে একটিমাত্র পাসওয়ার্ড ব্যবহার সাধারণ বিষয়। কিন্তু একটির পাসওয়ার্ড হাতিয়ে নিতে পারলে বাকিগুলোতেও তা ব্যবহার করবে হ্যাকাররা। এবার বুঝে দেখুন, আপনার কী অবস্থা জানাবে। তাই ঝামেলা মনে হলেও বিপদের হাত থেকে বাঁচতে ভিন্ন ভিন্ন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন।
৪. চোর ঠেকাতে পাহারা : আমেরিকার ফেডারেল ডিপোজিট ইনস্যুরেন্স করপ. (এফডিআইসি) থেকে জানানো হয়, ইন্টারনেটে বহু ভুয়া সাইট রয়েছে যারা আসল প্রতিষ্ঠানের নামে ওয়েবসাইট চালু রাখে। আপনি সব তথ্য দিয়ে এসব সাইটে প্রবেশ করলেই সর্বনাশ। ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বহু নামি-দামি প্রতিষ্ঠানের নামে এসব ভুয়া ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়।
তাই যেকোনো প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে নিজের তথ্য দেওয়ার আগে তা আসল সাইট কি না পরীক্ষা করে দেখার পরামর্শ দিয়েছে এফডিআইসি।
৫. 'ফিশিং' থেকে সাবধান : কোনো অপরিচিত সোর্সে ই-মেইল অ্যাকাউন্ট খুলবেন না। বিশেষ করে অ্যাটাচমেন্টসহ এসব ই-মেইল আসে। সেখানে আপনার লগঅন, পাসওয়ার্ড, ব্যক্তিগত তথ্য অথবা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর ইত্যাদি নিশ্চিতকরণের জন্য বলা হবে আপনাকে। একবার ফাঁদে পা দিলেই ফেঁসেছেন আপনি। সাইবার অপরাধীদের এই পদ্ধতিকে বলে 'ফিশিং'।
এফডিআইসিএর মতে, আসল প্রতিষ্ঠান কখনো এমন ই-মেইল পাঠাবে না।

উপরে