ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

নিজের পেশাকে দুষেছি

২০১৪ জুলাই ২৭ ১৩:১১:১৯
নিজের পেশাকে দুষেছি

ক্যান্সার ধরা পড়ার পর যখন দেশের বাইরে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়

তার ছেলেকে, তখনও শুটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন অভিনেতা এমরান হাশমি। বাবা হয়ে চিকিৎসাধীন সন্তানের পাশে থাকতে না পারার অনুশোচনা এখনও বয়ে বেড়ান এমরান।


“আমি সত্যিকার অর্থে নিজের পেশাকে অভিশাপ দিচ্ছিলাম, যেদিন আমার ছেলেকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু আমি যেতে পারিনি, কারণ আমার শুটিং ছিল।”চলতি বছরের শুরুতে কিডনিতে টিউমার ধরা পড়ে এমরানের চার বছর বয়সী ছেলে আয়ানের। চিকিৎসকরা জানান, টিউমারটি ইতোমধ্যেই ক্যান্সারে রূপ নিয়েছে যা এখনও প্রথম ধাপে আছে।



এরপর তাকে চিকিৎসার জন্য ভারতের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে এমরান জানালেন, এখন পুরোপুরি সুস্থ আছে তার সন্তান।
“আমার ছেলে এখন সম্পূর্ণ সুস্থ। ওকে যখন বিদেশে নিয়ে যাওয়া হয়, ও ভেবেছিল ওরা ছুটি কাটাতে যাচ্ছে। সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ, ও এখন ভাল আছে।”



প্রায় ছয় বছর প্রেম করার পর ২০০৬ সালে পারভিন সাহানিকে বিয়ে করেন হাশমি। তাদের একমাত্র সন্তান আয়ানের জন্ম হয় ২০১০ সালে।

উপরে